জলের গজল

মুহম্মদ নূরুল হুদা

জলের গজল-১

বাঁচতে হলে বাঁচতে হবে, তুমিও বাঁচো
আমার একার বেঁচে থাকা, নয় সে বাঁচা।

আমি যদি বাঁচি শুধু আমার জন্য,
তুমিও শুধু তোমার জন্য : নয় সে বাঁচা।

মানুষ বাঁচে প্রাণীর পাশে, ধ্যানীর পাশে
কাউকে ছাড়া একলা বাঁচা, নয় সে বাঁচা।

মায়ের গর্ভে বেঁচেছিলাম, মায়ের কোলে
মাতৃবিহীন আমার বাঁচা, নয় সে বাঁচা।

আকাশ দেখে মাটি দেখে বেঁচেছিলাম
অন্ধ বিশ্বে বন্ধ দৃশ্য, নয় সে বাঁচা।

বেঁচে থেকে নিজেকে দেখি পরকে দেখি
শত্রুও নেই মিত্রও নেই, নয় সে বাঁচা।

তোমার জন্যে জেগে আছে আমার জীবন
যৌবনহীন মৌবনহীন, নয় সে বাঁচা।

বাঁচবো যদি বাঁচবো তোমায়ি নিয়ে বুকে
আমিবিহীন তুমিবিহীন, নয় সে বাঁচা।

 

জলের গজল-২

তোমাকে পড়তে গিয়ে খুলে রাখি পাতা,
অক্ষরেরা উড়ে এসে জুড়ে বসে বুক;
হঠাৎ ঝাপসা সব, চোখের অসুখ।

সবুজের কাছে গিয়ে নতজানু হই
আমাকে শুশ্রুষা দাও, দা ঝাড়ফুঁক
ভালোবেসে ভালো করো চোখের অসুখ।

পোষাঠোঁটে টিয়ে এসে ঠোকরায় মণি
আকাশে ঝড়ের শুরু, বিজুলি অশনি
লাল ঠোঁট খুটে খায় চোখের অসুখ।

আমি তাই নির্বিকার নিরাকারে যাই
আমার সাকার কোনো মনৌষধি নাই
অশ্রুর দ্রবণে সারি চোখের অসুখ।

ভেজা চোখ ভেসে যায় জলের গর্জনে
আরোগ্যের ছলাকলা বজ্রের লবণে
সারে না চোখের জলে চোখের অসুখ।

 

“জাগতিক প্রকাশন থেকে প্রকাশিত কবিতার বই ‘জলের গজল’ গ্রন্থ থেকে উদ্ধৃত”

আরো দেখুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

যুক্ত হউন

21,994FansLike
2,943FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ